বিসিএস-পরীক্ষা – বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণের জন্য প্রণীত বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪ অনুযায়ী বিসিএস-এর নিম্নোক্ত ২৬টি ক্যাডারে উপযুক্ত প্রার্থী নিয়োগের উদ্দেশ্যে কমিশন কর্তৃক ৩ স্তরবিশিষ্ট পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। বিসিএস-পরীক্ষা – বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

 

বিসিএস-এর ২৬টি ক্যাডারের নাম (ইংরেজি বর্ণমালার ক্রমানুসারে)

১.  (প্রশাসন) সাধারণ ক্যাডার মন্তব্য ২. (কৃষি) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার বাংলাদেশ গেজেটে ১৩ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে প্রকাশিত এস.আর.ও. নম্বর-৩৩৫-আইন/২০১৮ অনুযায়ী বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ইকোনমিক) ক্যাডারকে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারের সাথে একীভূত করা হয়েছে। ৩.  (আনসার) সাধারণ ক্যাডার ৪.  (নিরীক্ষা ও হিসাব) সাধারণ ক্যাডার ৫.  (সমবায়) সাধারণ ক্যাডার ৬. (শুল্ক ও আবগারি) সাধারণ ক্যাডার ৭.  (পরিবার পরিকল্পনা) সাধারণ ক্যাডার ৮.  (মৎস্য) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ৯.  (খাদ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১০.  (পররাষ্ট্র) সাধারণ ক্যাডার ১১. (বন) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১২.  (সাধারণ শিক্ষা) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১৩.  (স্বাস্থ্য) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১৪. (তথ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১৫. (পশু সম্পদ) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১৬.  (পুলিশ) সাধারণ ক্যাডার ১৭.  (ডাক) সাধারণ ক্যাডার ১৮.  (জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ১৯.  (গণপূর্ত) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২০.  (রেলওয়ে প্রকৌশল) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২১. (রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিক) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২২.  (সড়ক ও জনপথ) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২৩.  (পরিসংখ্যান) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২৪. (কর) সাধারণ ক্যাডার ২৫.  (কারিগরি শিক্ষা) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার ২৬.  (বাণিজ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার

বিসিএস এর তিনস্তর বিশিষ্ট পরীক্ষা পদ্ধতি

বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে উপযুক্ত প্রার্থী মনোনয়নের উদ্দেশ্যে সরকারী কর্ম কমিশন নিম্নোক্ত ৩ স্তর বিশিষ্ট নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test ।

দ্বিতীয় স্তরঃ প্রিলিমিনারি টেস্টে কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

তৃতীয় স্তরঃ লিখিত পরীক্ষায় কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা।

 

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test

শূন্য পদের তুলনায় প্রার্থী সংখ্যা বিপুল হওয়ায় লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই-এর জন্য বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধি-৭ অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন ২০০ নম্বরের MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করে থাকে। ৩৪তম বিসিএস পরীক্ষা পর্যন্ত ১০০ নম্বরে প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করা হতো। বিসিএস পরীক্ষা বিধিমালা-২০১৪-এর বিধানমতে ৩৫তম বিসিএস পরীক্ষা হতে ২০০ নম্বরের ২ ঘণ্টা সময়ে ১০টি বিষয়ের উপর MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণের ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে।

 

প্রিলিমিনারি টেস্ট-এর বিষয় ও নম্বর বণ্টন

ক্রমিক নম্বর বিষয়ের নাম নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ভাষা ও সাহিত্য ৩৫
২. ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য ৩৫
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ৩০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ২০
৫. ভূগোল (বাংলাদেশ ও বিশ্ব), পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ১০
৬. সাধারণ বিজ্ঞান ১৫
৭. কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি ১৫
৮. গাণিতিক যুক্তি ১৫
৯. মানসিক দক্ষতা ১৫
১০. নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও সু-শাসন ১০
মোট ২০০

 

প্রিলিমিনারি টেস্ট -এর বিস্তারিত সিলেবাস

২য় স্তরঃ  ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা (গড় পাস নম্বর ৫০%)

প্রিলিমিনারি টেস্ট-এ কমিশন কর্তৃক কৃতকার্য ঘোষিত প্রার্থীদের ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়। নির্ধারিত শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী ২৬টি ক্যাডার সাধারণ ক্যাডার এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার এই দুই ক্যাটাগরিতে বিভক্ত।

ক. সাধারণ ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

খ. কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

ক. সাধারণ ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক নম্বর বণ্টন

 

ক্রমিক নম্বর আবশ্যিক বিষয় নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ২০০
২. ইংরেজি ২০০
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ২০০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ১০০
৫. গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা ১০০
৬. সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ১০০
মোট ৯০০

খ.  কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক নম্বর বণ্টন

ক্রমিক নম্বর আবশ্যিক বিষয় নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ১০০
২. ইংরেজি ২০০
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ২০০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ১০০
৫. গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা ১০০
৬. পদ-সংশ্লিষ্ট বিষয় ২০০
মোট ৯০০

 

 

লিখিত পরীক্ষার বিস্তারিত সিলেবাস

পদ সংশ্লিষ্ট (Job-related) বিষয়ের পরীক্ষা

যে সকল প্রার্থী সাধারণ ও কারিগরি/পেশাগত উভয় ক্যাডারের পদের জন্য পছন্দক্রম দেবেন, তাদেরকে সাধারণ ক্যাডারের জন্য নির্ধারিত বিষয়ের ৯০০ নম্বরের অতিরিক্ত সংশ্লিষ্ট পদ বা সার্ভিসের জন্য প্রাসংগিক বিষয়ের ২০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা দিতে হয়। বিসিএস-পরীক্ষা – বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

 

 

৩য় স্তরঃ  বিসিএস-এর ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা (পাস নম্বর ৫০%)

বিসিএস-এর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক। মৌখিক পরীক্ষায় পাশ নম্বর ৫০%।

 

বিসিএস-পরীক্ষার সাক্ষাৎকার বোর্ড গঠন

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের উপযুক্ততা নির্ধারণের জন্য বিসিএস পরীক্ষা বিধিমালার বিধান অনুযায়ী কমিশন নিম্নোক্তভাবে মৌখিক পরীক্ষার বোর্ড গঠন করে থাকেঃ

১. কমিশনের চেয়ারম্যান/সদস্য বোর্ড চেয়ারম্যান
২. সরকার কর্তৃক মনোনীত যুগ্মসচিব বা তদূর্ধ্ব পদমর্যাদার কর্মকর্তা বোর্ড সদস্য
৩. কমিশন কর্তৃক মনোনীত বিষয়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞ বোর্ড সদস্য

বিসিএস-পরীক্ষা – বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

বিসিএস-পরীক্ষা – বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন

Add a Comment

Your email address will not be published.