ই-পর্চা www.eporcha.gov.bd যে কোন খতিয়ান দেখতে ভিজিট করুন এই ওয়েবসাইটে

আপনারা সবাই ভালো আছেন?এই পোস্টে আপনাদের স্বাগতম ,আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন, আমাদের মধ্যে যাদের জমি-জায়গার পরিমান একটু বেশি তারা জমির আসল মালিকানা যাচাই-বাছাই করার জন্য অনলাইনের সহয়তা গ্রহণ করে। আর সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ ভূমি মন্ত্রণালয় ই- পর্চা  www.eporcha.gov.bd ওয়েবসাইটির উদ্বোধন করেন। এই ওয়েবসাইটি ব্যবহার করে জমি সংক্রান্ত তথ্য জানতে পারবেন এবং দালাল বা লোভনীয় ব্যক্তি হতে সেভ থাকবেন। ই-পর্চা www.eporcha.gov.bd যে কোন খতিয়ান দেখতে ভিজিট করুন এই ওয়েবসাইটে

সিএস,এসএ,বিএস,পেটি,দিয়ারা সহ ইত্যাদি খতিয়ান বা পর্চা দেখে কিংবা সার্টিফাইড কপির জন্য আবেদন করতে পারবেন

অনলাইনে জমির মালিকানা যাচাই প্রক্রিয়া 

জমির মালিকানা যাচাই-বাছাই করার ক্ষেত্রে কোথাও গিয়ে অযথা হয়রানির স্বীকার হতে হবে না। তাই বাংলাদেশ ভুমি মন্ত্রণালয় কতৃক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ঘরে বসে জমির আসল মালিকানা যাচাই-বাছাই করতে পারবেন। নিচে উল্লেখ্যিত একটি ফরম দেখতে পারবেন।

জমির খতিয়ান

 

 

বিভাগ নির্বাচনঃ আপনার নিজস্ব বিভাগ এখানে নির্বাচন করতে হবে।

জেলা নির্বাচনঃ আপনি কোন জেলার অন্তর্ভুক্ত তা এখানে নির্বাচন করুন।

খাতিয়ান টাইপ নির্বাচনঃ আপনি মুলত কোন ধরনের খতিয়ান বের করতে চান তা নির্বাচন করুন।

উপজেলা নির্বাচন করুনঃ আপনি কোন উপজেলার অন্তর্ভুক্ত তা এখানে নির্বাচন করুন।

মৌজা নির্বাচন করুনঃ আপনার মৌজার নাম কি তা নির্বাচন করুন।

খতিয়ান নংঃ আপনি যে জমির খতিয়ামটি বের করতে তা এখানে সিলেক্ট করুন।

দাগ নাম্বারঃ যদি আপনার জমির দাগ নাম্বারটি থেকে থাকে তাহলে এখানে সিলেক্ট করুন।

মালিকানা নামঃ মালিকানা নাম যদি থাকে তাহলে এখানে মেনশন করুন

পিতা/স্বামীর নামঃ পিতা/স্বামীর থাকলে তা এখানে নির্বাচন করুন।

ক্যাপচা কোড লিখুনঃ এখানে উল্লিখিত ক্যাপসা কোডটির অনুরুপ ফাঁকা জায়গাতে টাইপ করুন।

সর্বশেষে, উপরোক্ত তথ্য গুলো দিয়ে পুরোন করা হলে অনুসন্ধান অপশনে ক্লিক করুন।

 

বাসায় থেকে সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করুন

আপনি যদি কর্মস্থলে কিংবা অন্য কোনো কারনে জমির খতিয়ান উত্তোলন করার ক্ষেত্রে সময় দিতে পারছেন না।  তাহলে ঘাবড়ানোর কিছুই নাই। আপনি চাইলে ডাকযোগে আপনার বাসায় জমির খতিয়ান পৌঁছে দেওয়া হবে।

জমির খতিয়ান পেতে আবেদন করার সময় আবেদন ফরমে উল্লেখিত খতিয়ান পেতে চাই অপশনটি বেঁচে নিন। খতিয়ানটি যদি জরুরি প্রয়োজন হয়ে থাকে তাহলে ওয়েব পোর্টেলের জরুরি সেবা গ্রহণ করতে পারেন। আর এর জন্যে কিন্তু আবেদন করার ফরমে জরুরি অপশনে টিক চিহ্ন দিতে হবে।

ভূমি সেবার হটলাইন নাম্বার 

জমি সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যের জন্য এদিক সেদিকে হয়রানি না হয়ে।  আপনার হাতে থাকা মুঠো ফোনটির মাধ্যমে ভূমি সেবা হটলাইন নাম্বারে কল দিতে পারেন।  তাহলে এতে করে দেখা যাবে হয়রানি থেকে রেহাই পাবেন এবং সেখান থেকে সঠিক তথ্য গ্রহণ করতে পারবেন।  ভূমি সেবার হটলাইন নাম্বারটি হলোঃ- ১৬১২২। ই-পর্চা www.eporcha.gov.bd যে কোন খতিয়ান দেখতে ভিজিট করুন

 

 

শেষ কথা 

সম্মানিত ভিউয়াস, আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমার আর্টিকেলটি পড়ার জন্য।  আর হ্যাঁ, আমার আর্টিকেলটি পরে যদি আপনি একটুও উপকৃত হন, তাহলে আমি নিজকে ধন্য মনে করবো। আমি প্রতিনিয়ত চেষ্টা করি নতুন নতুন বিষয়ে আর্টিকেল লেখার। তাই আপনারা যারা আপডেট কোনো বিষয় সম্পর্কে জানতে চান তারা প্রতিনিয়ত আমার সাইটে ভিজিট করতে পারেন।  আপনার যদি কোন বিষয় সম্পর্কে জানার আগ্রহ থাকে। তাহলে আপনারা কমেন্ট সেকশনে কমেন্টের মাধ্যমে বলতে পারেন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করবো সে বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লেখার।  এই আশা ব্যক্ত করে আবারো সালাম দিয়ে শেষ করছি। ই-পর্চা www.eporcha.gov.bd যে কোন খতিয়ান দেখতে ভিজিট করুন